ঢাকা, সোমবার, ২৩ এপ্রিল ২০১৮ | ১১ : ৩৯ মিনিট

Kolpona-Das_swapno71_thams

সাজানো গোছানো বাড়িটা শ্মশান বানিয়ে দিলো : কল্পনা রানী দাশ

থানার পাশেই আমাদের বাড়ি। ৯ মে ভোরে থানায় বেজে ওঠে পাগলা ঘণ্টা। থানা থেকে পুলিশ এসে বলল, আপনাদের যা কিছু আছে তা-ই নিয়ে পালান।

Abdul-Hamid-Mollah-Malum_swapno71_thams

বাবার স্তন চুইষা বড় হইছি : আবদুল হামিদ মোল্লাহ

আমাকে দেখেই বাবা ফুপিয়ে কেঁদে উঠলো। বলল, ‘বাবা তুই এক্ষুনি চলে যা। ওরা আবার আসবে। ওরা মানুষ না, জানোয়ার। যারে সামনে পায় তারেই গুলি করে।’

Jahanara Begum _swapno71

চোখের সামনে উইড়া গেল দুলাভাইয়ের মাথার খুলিটা : জাহানারা বেগম

চোখের সামনে দ্রুম দ্রুম করে গুলি করে। বাবা বারবার পড়ছেন আল্লাহু আকবার, আল্লাহ আকবার..

Horidashi-Bormon_swapno71.jpgThams

মাথার উপর দিয়া শয়ে শয়ে গুলি যাইতাছে : হরিদাসী বর্মণ

গুলির শব্দ শুইন্যা আমরা পোলাপাইন লইয়া গাঙ্গের পাড়ে গিয়া আশ্রয় লইছি। আমাগো মাথার উপর দিয়া শয়ে শয়ে গুলি যাইতাছে।

20. Narayon Chondro Bormon_swapno71

শাড়ি পরে ঘোমটা দিয়ে প্রাণটা রক্ষা করলাম : নারায়ণ চন্দ্র বর্মণ

আমাদের বাড়ির সামনে একটা খাল। জোয়ারের পানিতে খালটা কানায় কানায় পরিপূর্ণ। নৌকা দিয়া অনেক লোককে খাল পার কইরা দিলাম।

Rajia Begum_ Thams_swapno71

 কচুরিপানার মতো দুঃখের সাগরে ভাসতাছি : রেজিয়া বেগম

স্বামী, দুই মাইয়া আর দুই পোলা নিয়া ছিল আমার সংসার। আমার স্বামী কৃষিকাজ করতো। ভোরবেলা সে চকে গেছে কাজ করতে। পশ্চিম দিকে বৃষ্টির মতো গুলি হইতাছে।

begum)swapno71_thams

দুই বোনকে কাঁড়ে উঠিয়ে মা দরজায় বসে থাকতো : কমলা বেগম

গোলাগুলির সময় আমরা ঘরে ছিলাম। বড় ভাই আবদুল হাই রাড়ি আইসা কইলো, গ্রামে আর্মিদের লঞ্চ ভিড়ছে, চলো পালাই। আমার মা ছিল অন্তঃসত্ত্বা

Fatema-Begum_swapno71_thams

সব হারাইয়া পথে পথে ঘুরি : ফাতেমা বেগম

সকাল ছয়টার সময় গুল্লির আওয়াজ হইতাছে। মানুষ দৌড়াদৌড়ি কইরা যাইতাছে । আমার আব্বায় মসজিদ থেইকা নামাজ পইড়া বাড়িতে আইছে।

swapno71_thams

আত্মায় তখন পানি ছিল না : আবু বকর ছিদ্দিক

ছোটবেলায় বাবা-মা মারা গেছেন। তাদের স্মৃতি মনে করতে পারি না। আমার ভগ্নিপতি আবদুল আজীজ রাড়ী আমাকে লালন-পালন করছেন।

Omor Faruk Akhand_swapno71_thams

রক্তের স্রোতের ওপর দিয়ে হেঁটে যাই : ওমর ফারুক আখন্দ

তখন গজারিয়া পাইলট হাইস্কুলে ষষ্ঠ শ্রেণিতে পড়ি। ওই বিদ্যালয়ের মাঠে বাঁশের লাঠি দিয়ে মুক্তিযুদ্ধের ট্রেনিং হতো।

« আগের পাতাপরের পাতা »