ঢাকা, রবিবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮ | ০১ : ০৯ মিনিট

1 (2) copyআজ শুক্রবার, বিকেল ৫টায়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের ড. হাবিবুল্লাহ কনফারেন্স হলে মুক্ত আসরের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে চতুর্থবারের মতো মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠান। প্রত্যেক প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে মুক্তিযুদ্ধের অসামান্য অবদান ও পরবর্তীতে সমােজরে জন্য কাজ করে যাওয়া  এমন কযেকজনকে মুক্তিযোদ্ধা সম্মাননা প্রদান করা হয়।

এবার মুক্তিযোদ্ধা সম্মাননা প্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা, সংগঠক ও লেখক হলেন : : আজাদ আলী, বীরপ্রতীক; কর্ণেল মনীষ দেওয়ান(বীর মু‌ক্তি‌যোদ্ধা); অধ্যাপক ড. এম এস এ মনসুর আহমেদ (বীর মু‌ক্তি‌যোদ্ধা); সেলিনা হোসেন (মু‌ক্তিযুদ্ধ‌বিষয়ক লেখক ও সংগঠক), সিস্টার ক্যাথরিন গনজালভেস (মু‌ক্তিযুদ্ধ সংগঠক), খোরশেদ আলম ( বীর মু‌ক্তি‌যোদ্ধা) ও আনোয়ার হোসেন ( বীর মু‌ক্তি‌যোদ্ধা)।

সম্মাননা প্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা, সংগঠন ও লেখকের হাতে সম্মাননা স্মরক তুলে দেবেন, মুক্ত আসরে প্রধান উপদেষ্টা মেজর জেনারেল (অব.) মাসুদুর রহমান, বীর প্রতীক, মেজর (অব.) তাহের আহমেদ, বীর প্রতীক, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপচার্য অধ্যাপক মুহাম্মদ সামাদ, শিশুসাহিত্যিক ও শব্দসৈনিক আখতার হুসেন, মনোরোগ চিকিৎসক ও লেখক মোহিত কামাল, মুক্ত আসর উপদেষ্টা ডা. আহমেদ হেলাল, সমাজসেবী রাশেদা নাসরীন, মুক্তিযোদ্ধা পদ্মা রহমান ও মুক্ত আসরের প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি আবু সাঈদ । আলোক স্কুলের শিক্ষার্থীদের জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে শুরু হয় অনুষ্ঠান। মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের প্রতি এক মিনিট নীরবতা পালনের মাধ্যমে শ্রদ্ধা জানানো হয়।

মুক্তিযোদ্ধা সম্মাননা অনুষ্ঠানটি উৎসর্গ করা হয়েছে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও লেখক মেজর ( অব.) কামরুল হাসান ভূঁইয়া ্ও মুক্ত আসরের উপদেষ্টা আফজালুর রহমান সিনহা। কবিতা আবৃত্তি করবেন সাহিনা মিতা ও আশফাকুজ্জামান। অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করবেন মৌসুমী মৌ।

Comments

comments