ঢাকা, সোমবার, ১৮ জুন ২০১৮ | ১১ : ০২ মিনিট

বিশ্বায়নে এই যুগে আমার এখন এক ছাতার নিচে চলে এসেছি। ফেসবুকের কল্যাণে দেশে বিদেশে অনেক বন্ধুৃর সঙ্গে প্রতিনিয়ত চেনা ও জানা হচ্ছে। এর মাঝে অচেনা কিছু ফেসবুক বন্ধু ফেক আইডি খুলে কিছু অসৎ উদ্দেশ্যে নেমেছে। তারা তৈরি করছে বিভিন্ন নাম ও ছবি দিয়ে ফেক প্রোফাইল। তখন হয়তো কেউ কেউ বিপদে পড়ছে। এই বিপদ বা ফেক প্রোফাইল থেকে নিজেকে কীভাবে দূরে থাকবেন। তার সহজ ৯টি কৌশল সর্ম্পকে জেনে নিই-

১. সন্দেহজনক অ্যাকাউন্টটির প্রোফাইল দেখলে প্রথমত চেক করতে হবে তার দেওয়া ছবিগুলো। যদি দেখেন প্রোফাইল ছবির সংখ্যা মাত্র দুই একটা, তাহলে বুঝবেন এটা ফেক অ্যাকাউন্ট হওয়ার সম্ভাবনা বেশি

২. ফেক অ্যাকাউন্টের প্রোফাইল ছবি কখনও জেনুইন হতে পারে না। ডিপি-টি ভুয়ো কি না, তা জানার জন্য ছবিটি ডাউনলোড করে নিয়ে গুগল ইমেজ সার্চে (images.google.com) গিয়ে ছবিটি দিয়ে সার্চ করা। জেনে যাবেন, ছবিটি আসলে কার।

৩. সন্দেহজনক অ্যাকাউন্টের ফেসবুক অ্যাক্টিভিটি কেমন? স্টোটাস হালনাগাদ কি ঠিক মতো হয়ে না পোস্টের সংখ্যা খুব কম এবং অনিয়মিত, অন্যদের পোস্টে তার লাইক বা কমেন্ট বা শেয়ার চোখে পড়ে না— এগুলো অ্যাকাউন্টটি ফেক হওয়ার লক্ষণ।

৪. সন্দেহজনক অ্যাকাউন্টের ফ্রেন্ডলিস্টে মিউচুয়্যাল কারা রয়েছে? তাদের সকলেই কি আপনার অচেনা? তাদের কি অনিয়মিতভাবে নিজের অ্যাকাউন্টে অ্যাড করছে ওই ব্যক্তি? তাহলে এমনটা হতেই পারে যে, সে ফেক অ্যাকাউন্ট চালাচ্ছে।

৫. তার ফ্রেন্ডলিস্টটি ভাল করে খেয়াল কেরতে হবে। যদি দেখেন তার ফেসবুক বন্ধুদের মধ্যে প্রায় সকলেই পুরুষ, কিংবা সকলেই মহিলা— তাহলে সেই অ্যাকাউন্ট ফেক হওয়ার যথেষ্ট সম্ভাবনা রয়েছে।

৬. সন্দেহভাজন অ্যাকাউন্টটির ‘অ্যাবাউট’ অংশটিতে যান। দেখুন, স্কুল, কলেজ, বা কর্মস্থল সম্পর্কে কী কী তথ্য দেওয়া রয়েছে। যদি কোনও তথ্যই না থাকে, কিংবা প্রদত্ত তথ্যগুলির মধ্যে কোনও অসঙ্গতি চোখে পড়ে, তাহলে নিশ্চিত হতে পারেন যে, এটি ফেক প্রোফাইল।

৭. আপনার এই সন্দেহজনক ফেসবুক বন্ধুটির জন্মতারিখ কী? ১ জানুয়ারি, ৩১ ডিসেম্বর, কিংবা ১৫ অাগস্টের মতো কোনও তারিখে কি তার জন্ম, যা সহজেই মনে রাখা যায়? তাহলে সেই অ্যাকাউন্ট ভুয়ো হতে পারে।

৮. সন্দেহজনক অ্যাকাউন্টটির ফেসবুক ওয়াল চেক করতে হবে। যদি দেখেন, ‘থ্যাঙ্কস ফর অ্যাডিং মি, ডু আই নো ইউ’ এই জাতীয় পোস্ট অনেকগুলি রয়েছে তার ওয়ালে এবং একটিরও কোনও উত্তর সে দেয়নি, তাহলে প্রায় নিশ্চিত হতে পারেন, অ্যাকাউন্টটি ভুয়ো।

৯. অ্যাকাউন্টটিতে ছবি রয়েছে কোনও মেয়ের, জেন্ডার লেখা রয়েছে ‘ফিমেল’, এবং সেই সঙ্গে দেওয়া রয়েছে নিজের নম্বরও? তাহলে এটি ফেক অ্যাকাউন্ট হওয়ার সম্ভাবনা প্রবল। [সূত্রধর: এবেলা]

Comments

comments