ঢাকা, শনিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৮ | ০৭ : ১১ মিনিট

1পৃথিবীতে কতোকিছু যে বিস্ময়কর ঘটনা ঘটছে। তা বলেই শেষ করার মতো না। মাত্র চার বছরে একটা ছোট্ট ছেলে সে কী না ইংরেজি, জ্যামিতি, অ্যালজেবরা এবং রসায়নে সমান পারদর্শী।

জানা যায়, এখনও স্কুলেই ভর্তি  হয়নি। অথচ কঠিন কঠিন বিষয়গুলো এখন তার আয়ত্বে। সেই ছোট্ট ছেলেটির নাম সুবর্ণ আইজ্যাক। বাবা মায়ের সঙ্গে থাকেন যুক্তরাষ্ট্রে । বাবা মা দুইজনের বাড়ি বাংলাদেশের চট্টগ্রাম। গণিতের শিক্ষক বাবার রাশেদুল বারি ও  মা শাহেদা বারি। বিজ্ঞানী নিউটনের নামের সঙ্গে ছেলে নাম রাখেছেন। কিন্তু কার্যকরণে আইনস্টাইন।

2সুবর্ণর বাবা জানান, হাসপাতালের বিছানায় সুবর্ণকে আমি বলি আমি তোমাকে মহাবিশ্বের সবকিছুর চেয়ে বেশি ভালোবাসি। তখন সে আমাকে জিজ্ঞেস করে মহাবিশ্ব না বহুবিশ্ব? এই কথাটা আমার দৃষ্টি আকর্ষণ করে। আমি আরো জিজ্ঞেস করলাম, এন প্লাস এন সমান কত? সে বললো, টুএন। আমি বললাম,এন মাইনাস এন সমান কি হবে? সে বললো, জিরো। তখন বুঝলাম আমার এ ছেলের আলাদা কিছু বৈশিষ্ট্য রয়েছে।

3সুবর্ণ আবিষ্কার করেছে কিভাবে লিয়ন ব্যাটারির সাহায্যে বিদ্যুৎ উৎপাদন করা যায়। এ দেখে বিস্মিত হয় দ্য সিটি কলেজ অব নিউইয়র্কের প্রেসিডেন্ট লিসা কইসো। তিনি বলেন, ‘সে যে টি-শার্টটি পড়ে আছে সেটা আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম। আমি নিশ্চিত সে খুব দ্রুতই আমাদের ছাত্র হবে। বিজ্ঞানী হয়ে সে দেশ ও জাতির উন্নতি করবে এতে কোন সন্দেহ নেই। আমি অভিভূত।’

Untitled-1

ভয়েস অব আমেরিকার স্টুডিওতে সে নির্ভূলভাবে সব রাসায়নিক সংকেতগুলো বলে। আর একটি আপেল কেটে সহজে বুঝিয়ে দেয় এটম তত্ত্ব। পরমাণুর বিভাজন (ইলেকট্রন, নিউট্রন, প্রোটন) বর্ণনা করে।

ভিডিওটি দেখুন :
https://www.youtube.com/watch?v=z0LODwd_Jwo&feature=youtu.be

Comments

comments